রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:৫৯ অপরাহ্ন

যুক্তরাষ্ট্রের শহরে রাতভর গুলি: নিহত ৪, আহত ১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : / ৭১ জন পড়েছেন
সোমবার, ১৭ আগস্ট, ২০২০

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সিনসিনাটি শহরে এক রাতেই বিভিন্ন জায়গায় গুলিবর্ষণে অন্তত ৪ জন নিহত এবং ১৮ জন আহত হয়েছেন।স্থানীয় প্রশাসন এই রাতকে ‘হিংস্র রাত’ বলে উল্লেখ করেছেন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম ও পুলিশের বরাত দিয়ে এখবর দিয়েছে আল জাজিরা।

খবরে বলা হয়েছে, সিনসিনাটি শহরে শনিবার গভীর রাত থেকে রবিবার ভোর পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে গুলি চালানোর ঘটনা ঘটেছে। পুলিশের প্রাথমিক দাবি, প্রতিটি ঘটনাই বিচ্ছিন্ন৷ তবে কোনো বন্দুকবাজ এই হামলা চালিয়েছে, নাকি অন্য কোনো কারণে এতজন গুলিবিদ্ধ হলেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়৷

প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে, শনিবার রাত সাড়ে ১২টা নাগাদ প্রথম গুলি চালানোর খবর আসে অ্যাভোনডেল এলাকা থেকে৷ সেখানে ২১ বছর বয়সি অ্যান্টোনিও ব্লেয়ার নামে এক যুবককে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ৷ কিন্তু তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি৷ একই জায়গা থেকে গুলির আঘাত নিয়ে আহত অবস্থায় আরও তিন জনকে উদ্ধার করে পুলিশ৷

রাত ২:৩০ মিনিটে ফের একবার ওভার দ্য রাইন এলাকা থেকে গুলি চালানোর খবর আসে৷ সেখানে আহত হন ১০ জন৷ তাদের মধ্যে একজনের ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়, আর একজন মারা যান হাসপাতালে৷ মৃত দুই যুবকের বয়স ৩৪ এবং ৩০ বছর৷

এর পাশাপাশি শহরের ওয়ালনাট হিলস এলাকাতেও গুলি চালানোর ঘটনা ঘটে৷ এর পাশাপাশি পশ্চিম প্রান্ত থেকেও রবিবার ভোরে গুলি চালানোর ঘটনা ঘটেছে৷ সেখানেও একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলিতে দাবি করা হচ্ছে৷

পুলিশ জানিয়েছে, প্রতিটি ঘটনাই এক থেকে দেড় ঘণ্টা অন্তর ঘটেছে৷ যদিও শহরের অ্যাসিস্ট্যান্ট পুলিশ কমিশনার পল নিউজিগেট দাবি করেছেন, প্রতিটি ঘটনাই বিচ্ছিন্ন এবং পরস্পরের সঙ্গে সম্পর্ক নেই বলেই তারা মনে করছেন৷ তবে কারা এই ঘটনার জন্য দায়ী সেবিষয়ে প্রাথমিকভাবে অন্ধকারে পুলিশ৷

শহরের মেয়র জন ক্র্যানলি স্বীকার করে নিয়েছেন, শহরের বাসিন্দাদের কাছে বন্দুক বা আগ্নেয়াস্ত্র রাখাটা অত্যন্ত সহজলভ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ করোনা মহামারির জন্য এখন বার বন্ধ৷ ফলে নিজেদের বাড়িতে বা ব্যক্তিগত জায়গাতেই পার্টি করার জন্য নিয়মিত জড়ো হচ্ছেন অনেকে৷ সেখানেই এই ধরনের হিংসাত্মক ঘটনা ঘটছে বলে অনুমান তার৷ ফলে আপাতত এই ধরনের পার্টিতে গিয়ে নিজেদের প্রাণ সংশয় না করার জন্য শহরবাসীর কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

আর্কাইভ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও খবর