বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৩৬ পূর্বাহ্ন

অপ্রীতিকর ঘটনা ঠেকাতে প্রশাসনের ১৪৪ ধারা জারি

সোজা সাপটা রিপোর্ট / ১৭ জন পড়েছেন
রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০

নারায়ণগঞ্জ শহরে অপ্রীতিকর ঘটনা ঠেকাতে ১৪৪ ধারা জারি করেছে জেলা প্রশাসন। সকল প্রকার সভা সমাবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সার্বক্ষনিক তদারকির জন্য ম্যাজিষ্ট্রেনের নেতৃত্বে একাধিক পুলিশ টীম সর্তক অবস্থায় রাখা হয়েছে। ২৭ সেপ্টেম্বর রোববার ভোর ৬টা হতে পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত এ ১৪৪ ধারা জারি থাকবে।
হেফাজতে ইসলামের আমীর প্রয়াত আল্লামা আহমদ শফীকে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি করার অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃত আলাউদ্দিন জিহাদী ইস্যুতে পাল্টাপাল্টি গণজমায়েত ডাকায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সুষ্ঠু রাখতেই এ ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।
নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক জসিমউদ্দিন সাক্ষরিত এ সংক্রান্ত আদেশে বলা হয়, আহলে সুন্নত ওয়াল জামাত নারায়ণগঞ্জ শহরের ২নং রেল গেট এলাকাতে সভার আয়োজন করে। এছাড়া আরেকটি পক্ষও সভার ডাক দেয়। এ অবস্থায় পরিস্থিতি ঠিক রাখতে সিটি করপোরেশন ভবন হতে চাষাঢ়া শহিদী মিনার ও খানপুর ৩০০ শয্যা এলাকা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি থাকবে। এখানে কোন প্রকার জটলা, মিছিল মিটিং, সমাবেশ, যে কোন ধরনের অস্ত্র বহন, সন্দেহজনক ঘোরাফেরা নিষিদ্ধ।
এছাড়া ২নং রেল গেট, শহীদ মিনার, গ্রীন্ডলেজ ব্যাংক মোড় এলাকাতে পৃথকভাবে তিনজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে দায়িত্ব পালনের নির্দেশনা রয়েছে।
এর আগে ২৬ সেপ্টেম্বর শনিবার রাতে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ওলামা পরিষদ ও হেফাজাত নেতৃবৃন্দ সহ আহলে সুন্নত ওয়াল জামাতের নেতাদের সঙ্গে পৃথকভাবে বৈঠক করেন। বৈঠকে উভয় পক্ষকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে কোন ধরনের জমায়েত ও উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করা যাবে না। সেই সঙ্গে উস্কানিও চলবে না।
নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি আসাদুজ্জামান নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, আমাদের কাছে খবর ছিল সকালে ডিআইটিতে ওলামা পরিষদ ও বিকেলে আহলে সুন্নত ওয়াল জামাতের নেতাকর্মীরা পৃথকভাবে সমাবেশ গণ জমায়েত করবে। বিষয়টি নিয়ে উত্তেজনা ছিল। উভয় পক্ষকে ডেকে এ ধরনের গণজমায়েত থেকে বিরত থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কেউ আদেশ নির্দেশ অমান্য করলে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
হেফাজতে ইসলামের প্রয়াত আমীর আল্লামা আহমদ শফীকে কটূক্তি করার অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃত আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত’র সদস্য আল্লামা মুফতী আলাউদ্দিন জিহাদী ইস্যুতে এ সমাবেশ ও গণজমায়েতের ডাক দেওয়া হয়।
শহরের ডিআইটি জামে মসজিদের সামনে ওলামা পরিষদের ব্যানারে বিক্ষোভ করবেন জানিয়েছিলেন সংগঠনটির জেলার সভাপতি আবদুল আউয়াল যিনি একই সঙ্গে হেফাজতের জেলার সভাপতি। মূলত ওলামা পরিষদ, হেফাজতে ইসলাম ও জমিয়তের নারায়ণগঞ্জের কমিটিগুলো একই ব্যক্তি দ্বারা পরিচালিত।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের প্রয়াত আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর মৃত্যু নিয়ে কটুক্তির অভিযোগে এনে দেওভোগ মাদ্রাসার খতিব হারুনুর রশীদ বাদী হয়ে মুফতি আলাউদ্দিন জিহাদীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের একটি মামলা করা হয়। ওই মামলায় গত ২০ সেপ্টেম্বর দুপুরে ফতুল্লার মাহমুদপুর এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।এর পর থেকেই মূলত ধারাবাহিক আন্দোলন চলে আসছিল।

আর্কাইভ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও খবর