রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:২১ অপরাহ্ন

অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে: মেয়র আইভী

সোজা সাপটা রিপোর্ট / ৯৫ জন পড়েছেন
রবিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

 নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী বলেছেন, গাছ লাগানো খুব সোয়াবের ব্যাপার। এ গাছ একদিন বড় হবে এ গাছের ছায়ায় এক সময় সবাই বসবে এবং দোয়া করবে। এ গাছের ফল যখন পাখি খাবে তখন সেই দোয়া করবে। এ ভালো কাজের উসিলায় হয়তো আপনার বেহেস্ত যাবার পথ সুগম হতে পারে। এসব ছোট ছোট সোয়াবের জন্য আমরা অনেকে মুক্তি পেতে পারি। এ গাছ লাগানো যেমন ভাল কাজ, এ গাছের পরিচর্যা করাও ভালো কাজ।
শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বন্দরের রূপালি এলাকায় নদীর পাড়ে রোটারী ক্লাব অব নারায়ণগঞ্জ রয়েলের উদ্যোগে ২শ বৃক্ষ রোপন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, আমার কোন ওয়ার্ডে কি প্রয়োজন আমি জানি। আমি বলেছি, ওয়াসা আমি মাত্র নিয়েছি আমার সময় লাগবে আপনাদের বিশুদ্ধ পানি দেয়ার জন্য। আমি যেভাবে ওয়াসাকে নিয়েছি সবই নষ্ট। আমি আগামী ১ বছরের মধ্যেও আপনাদের পানি দিতে পারবোনা, কারণ এখানে কাজ অনেক। আমি পুরো ৫শ কোটি টাকা পানির জন্য দিয়ে দিয়েছি। শুধুমাত্র আপনাদের একটু ধৈর্য্য ধরতে হবে। পানি শীতলক্ষ্যা থেকে নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে আপনাদের পানি দেয়ার কথা। যেখানে যেখানে সমস্যা আছে সেগুলো আমরা দেখছি।
মেয়র বলেন, ডাইং এর পানি ও মিল ফ্যাক্টরীর পানির ব্যাপারে কাউন্সিলরদের সতর্ক থাকতে হবে। এগুলো নিয়ে আপনারা আন্দোলন করেন পানি কিভাবে বিশুদ্ধ রাখা যায়। নদীর পানিকে কিভাবে রক্ষা করা যায় সেগুলো নিয়ে আমাদের কথা বলতে হবে।
আইভী আরো বলেন, এত মসজিদ মন্দির কিন্তু আমাদেরকে সতর্ক হতে হবে যেন ঘুষ না খাওয়া ও অন্যান্য অপকর্ম না করা হয়। এখন তো আনাচে কানাচে মসজিদ। সবকিছু মিলিয়ে আমাদের ইমানকে মজবুত করতে হবে, অন্যায়কে অন্যায় বলতে হবে। অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে। মনে রাখবেন, ৫ ওয়াক্ত নামাজ পড়লেই ইমানদার হওয়া যায়না, সকাল সন্ধ্যা তসবি চালালেও ইমানদার হওয়া যায়না যদি ঐ লোক সমাজে দাঁড়িয়ে সঠিক কথাটি না বলেন এবং যারা ভালো কাজ করে তাদেরকে সহযোগিতা না করে।
তিনি বলেন, ভোট দিলেই দায়িত্ব শেষ না। আমাদেরকে পরিচালিত করার দায়িত্ব আপনাদের। আমাদের কাজ কিভাবে আদায় করে নেবেন সেই দায়িত্ব আপনাদের। আমাদেরকে আরো অনেক বেশি গাছ লাগাতে হবে। যেহেতু এটি মুজিববর্ষ আর এই বছরের কার্যক্রম করোনার জন্য সীমিত করা হয়েছে। তবে গাছপালা লাগানোর যে কাজ রয়েছে সেগুলো আমাদের অব্যাহত রয়েছে। আমরা বিভিন্ন যায়গায় গাছ লাগানো। এ বছরব্যাপী আমরা গাছ লাগাবো। প্রয়োজনে আমি আপনাদের গাছ দেব। যদি অবৈধ কোন কিছু থাকে তাহলে ভেঙ্গে ফেলবেন আমাকে বলার কি আছে।
সাম্প্রতিক মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় তিনি বলেন, তল্লা মসজিদে হতাহতদের জন্য আমরা দোয়া করবো। নিশ্চয়ই তারা জান্নাতি। আপনারা যেখানেই মসজিদ ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান করেন না কেন সে যায়গাটা নিষ্কণ্টক কিনা সেটা দেখে নেবেন। আমরা সরকারি যায়গা পেলেই মসজিদ মাদ্রাসা করে ফেলি, দয়া করে সেগুলো আপনারা করবেন না। মসজিদের যায়গা একেবারে নিষ্কণ্টক না হলে সেটি ঠিক হয়না।

আর্কাইভ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও খবর