মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৪৬ অপরাহ্ন
Headline :
নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবি সমিতি নির্বাচন সুষ্ঠ নির্বাচন নিয়ে শংকিত বিএনপিপন্থি আইনজীবী প্যানেল ভিন্ন রূপে নারী নেত্রী দিনা চিৎকার পৌঁছায় লন্ডনে, পরিবর্তনে বিএনপি সদর উপজেলায় বিজ্ঞান মেলার উদ্বোধন নাসাতে যেতে চাই -ডিসি বন্দরে রাজাকার পুত্রের নেতৃত্বে ‘বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উদযাপন কমিটি’ শীর্ষ রাজাকারের পুত্র নিয়ে রাজনীতির মাঠে আনোয়ার হোসেন ১০০ কোটি টাকার ঋণ কেলেঙ্কারির হোতা মনির অধরা! আনন্দধামের পক্ষে সিমুর জেলা প্রশাসককে শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর কাছে বাংলার মানুষ ও বিশ্ববাসী কৃতজ্ঞ: ভিপি বাদল নারায়ণগঞ্জে ১ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ৬ কেসি এ্যাপারেলস হারালো টার্গেট গ্রুপকে অধ্যাপক বুলবুল চৌধুরীর ৩য় মৃত্যুবার্ষিকী

স্কুলছাত্র হত্যা মামলার প্রধান আসামি ৪ দিনের রিমান্ডে

কোর্ট প্রতিনিধি:  / ৩০ জন পড়েছেন
আপডেট সময়: বৃহস্পতিবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০২০

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে অপহরণের পর শিশু আরাফাতকে হত্যা মামলার প্রধান আসামি রিপনের ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। মঙ্গলবার (২৩ ডিসেম্বর) সকালে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সিরাজদৌল্লাহ ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করলে নারায়ণগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারহানা ফেরদৌসের আদালত এ নিদেশ দেন। আসামী রিপন বন্দর উপজেলার লাউসার গ্রামের ইসলাম মিয়ার ছেলে। এদিকে শিশুর স্বজনরা আদালতের বাহিরে বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সিরাজদৌল্লাহ জানান, বন্দর উপজেলার লাউসার গ্রামের মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য রফিকুল ইসলাম মনার ছেলে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র আরাফাত (১১) ১৫ ডিসেম্বর রাতে বাড়ির পাশেই বিজয় দিবসের কনসার্ট অনুষ্ঠানে যায়। কনসার্ট থেকে বাড়ি ফেরার পথে মো. ইসলাম মিয়ার ছেলে মো. রিপন মিয়াসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজন আরাফাতকে বাড়ির পাশে পরিত্যক্ত এক স্কুল ভবনে ধরে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে প্রথমে ইট দিয়ে আরাফাতের মাথা থেঁতলে দেয়। পরে গলা টিপে হত্যা করে বাড়ির পাশের পুকুরে লাশটি ফেলে দেয়। নিখোঁজের ৩ দিন পর ১৮ ডিসেম্বর সকালে পুকুর থেকে আরাফাতের লাশ উদ্ধার করা হয়।

আদালত পুলিশের পরিদর্শক (ওসি) আসাদুজ্জামান  বলেন, আসামীকে ধরে এনে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। পরে ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত।

উল্লেখ্য,  মদনপুর ইউপির সাবেক সদস্য রফিকুল ইসলামের ছেলে আরাফাত রহমানের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এর পর দির (১৯ ডিসেম্বর) রাতে নিহতের মা রিনজু বেগম বাদী হয়ে একই গ্রামের ইসলাম মিয়ার ছেলে রিপন মিয়াকে প্রধান আসামি করে এবং রাব্বিসহ আরো ৪-৫কে আজ্ঞাত আসামি করে বন্দর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।#

আর্কাইভ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও খবর