শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:৫৩ অপরাহ্ন

তারাব পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রত্যাশী তরুণ শিল্পপতি সিয়াম কাঙ্খিত উন্নয়ন থেকে তারাব পৌরবাসী বঞ্চিত

সোজা সাপটা রিপোর্ট:  / ১২ জন পড়েছেন
সোমবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২০

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার তারাব পৌরসভার আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশা করে মাঠে নেমেছেন তরুণ শিল্পপতি খান মো: মাহমুদ হাসান সিয়াম। তিনি তারাব পৌরসভার প্রতিষ্ঠালগ্নের মেয়র শিল্পপতি মাহবুবুর রহমান খান মাহবুবের ছেলে এবং তারাব পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড যুবলীগের সদস্য।

রোববার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ শহরের একটি রেস্তোরায় একান্ত আলাপচারিতায় নিজের অবস্থান তুলে ধরে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশার কথা জানান এই তরুণ ব্যবসায়ী। লন্ডনে শিক্ষা অর্জন করা এই তরুণ ব্যবসায়ী বলেন, রুপগঞ্জের তারাবো পৌরসভা রাজধানীর নিকটবর্তী হলেও কাঙ্খিত উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হয়েছে পৌরবাসী। শুধুমাত্র উদ্যোগের অভাবে কাঙ্খিত উন্নয়ন বঞ্চিত এ জনপদ। জননেত্রী মাননীয় প্রধাণমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ উন্নয়ন যজ্ঞের মধ্যে কেন আমরা এতটা বঞ্চিত? যে নেত্রীর দরজায় নক করলেই পাওয়া যায় উন্নয়নে অর্থ। মুহুর্তের মধ্যেই অনুমোদন দেয়া হয় জনগনের উন্নয়ণ প্রকল্প। সেই উন্নয়নের রূপকার নেত্রীর দল করে আমরা কেন বঞ্চিত, এ প্রশ্ন করেছেন অনেকেই। আমি এ নিয়ে বিস্তর অনুসন্ধান করে যতটুকু জানতে পেরেছি তা হলো, প্রকল্প পরিকল্পনা ও উদ্যোগের ব্যর্থটা। মায়ের কাছে না কাঁদলে মা কিন্তু দুধ দেয় না। আসলে আমরা এদেশে একজন মা পেয়েছি, কিন্তু সে মাকে সন্তান হিসেবে কাজে লাগাতে পারিনি। এ দোষকি মায়ের না আমাদের? অবশ্যই আমাদের। তাই আমি মনে করি আমাকে যদি তারাব পৌরসভায় নৌকা প্রতীক দেয়া হয় তাহলে সেই মা জননেত্রী মাননীয় প্রধাণমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্মান রক্ষার্থে যা করা প্রয়োজন আমি তাই করবো। তারাব পৌরসভাকে নিয়ে যায় উন্নয়নের উচ্চ শিখরে।

এলাকার নানা সমস্যা তুলে ধরে মাহমুদ হাসান সিয়াম বলেন, সামান্য বৃষ্টিতে পানি জমে তারাব পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ড-মহল্লায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। এটা কখনো পরিকল্পিত পৌরনগরী হতে পারে না।

তিনি বলেন, আমি তারাব পৌরসভার থেকে আগামী নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামীলীগ থেকে মনোয়ন প্রত্যাশী। দল যদি আমাকে মনোনয়ন দেয় এবং তারাব পৌরবাসী যদি আমাকে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করেন, আমি তরুণ, যুবক, মুরুব্বী সবাইকে সঙ্গে নিয়ে তারাব পৌরসভাকে একটি আধুনিক রোল মডেল পৌরসভা হিসেবে পড়ে তুলবো। যেই পৌরসভায় থাকবে প্রপার ড্রেনেজ সিস্টেম, প্রপার রাস্তাঘাট, থাকবে আধুনিক সু-চিকিৎসা, আধুনিক এডুকেশন, সুন্দর খেলার মাঠ। এছাড়া সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসাকে দুর করে তারাব পৌরসভাকে বাংলাদেশের সর্বশ্রেষ্ঠ আধুনিক পৌরসভাতে রূপান্তরিত করবো। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি আশাবাদী আমি দলীয় মনোনয়ন পাবো। ইনশাআল্লাহ। মত বিনিময় শেষে তিনি সংবাদপত্রকর্মীদের কাছে সহযোগিতা কামনা করেন।

আর্কাইভ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও খবর