শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:৪৩ অপরাহ্ন

নিজ আসনেই জাতীয় পার্টির এমপি খোকাকে অবাঞ্চিত ঘোষনা নারায়ণগঞ্জে জাপা-আওয়ামীলীগ মুখামুখি

নিজস্ব প্রতিবেদক: / ১৪ জন পড়েছেন
শুক্রবার, ২০ নভেম্বর, ২০২০

উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে নারায়ণগঞ্জের রাজনীতি। জিউস পুকুর বিরোধের পরপরই মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছে জাতীয় পার্টি বনাম আওয়ামীলীগ। ইতোমধ্যে নারায়ণগঞ্জ ৩ আসনের এমপি লিয়াকত হোসেন খোকাকে সোনারগাঁয়ে অবাঞ্চিত ঘোষনা করেছে সেখানকার আওয়ামীলীগ নেতা কর্মীরা। জেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দরাও এমপি খোকার আচরনে ক্ষুব্দ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। মেয়র আইভীসহ নেতৃবৃন্দরা নিন্দা ও প্রতিবাদ অব্যহত রেখেছেন। গতকাল বৃস্পতিবার জেলা আওয়ামীলীগ এ প্রেস বিজ্ঞপ্তি মিডিয়া কর্মীদের কাছে পাঠিয়েছেন। যা এ বিরোধে নতুন মাত্রা যোগ করেছে। এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার সোনারগাঁয়ে সাবেক এমপি কায়সার হাসনাতের নেতৃত্বে এমপি খোকার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ মিছিল করেছেন। তারা এমপি খোকাকে সোনারগাঁয়ে অবাঞ্চিত ঘোষনা করেছে। ফলে সোনারগাঁয়ে জাপা ও আওয়ামীলীগের এ মুখোমুখি অবস্থান সংঘাতে রূপ নিতে পারে বলে শংকিত এলাকাবাসী।

জেলা আওয়ামীলীগের প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: নারায়ণগঞ্জ ৩ আসনের জাতীয় পার্টির এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছে জেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সোনারগাঁও এর এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার নির্দেশে সোনারগাঁ পি আর ইনস্টিটিউশন স্কুল এন্ড কলেজের মূল ফটকের জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামীলীগ সভাপতি আনোয়ার হোসেনের নাম ফলক ভেঙ্গে দেয়া হয়। জেলা আওয়ামীলীগ এর তীব্র নিন্দা ও প্রবতিবাদ জানিয়েছেন। এমপির এহেন আচরনে সকল আওয়ামীলীগ পরিবার ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন ও দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী করেছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান, জেলা আওয়ামীলীগ সিনিয়র সহ-সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী, মহ-সভাপতি এডভোকেট আসাদুজ্জামান আসাদ, আরজু রহমান ভুইয়া, আলহাজ¦ আব্দুল কাদির, আদিনাথ বসু, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আলহাজ¦ জাহাঙ্গীর আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ¦ মো: ইসহাক, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. নিজাম উদ্দিন, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মরিয়ম কল্পনা, পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রানু খন্দকারসহ অন্যন্য নেতৃবৃন্দ।

সোনারগাঁ আওয়ামীলীগের বিক্ষোভ ও ঘোষনা:

নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকাকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছেন সোনারগাঁ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। একই সাথে এই আইন প্রনেতাকে গ্রেপ্তারের পাশাপাশি শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) সকালে সোনারগাঁ উপজেলার জি আর ইনষ্টিটিউশন স্কুল এন্ড কলেজের সামনে এক প্রতিবাদ কর্মসূচি থেকে এ ঘোষণা আসে।

সোনারগাঁ পৌরসভা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তৈয়বুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে কক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত।

সম্প্রতি জেলা পরিষদের অর্থায়নে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলায় অবস্থিত জি আর ইনিষ্টিটিউশনের মেইন গেইট ও সীমানা প্রাচীন নির্মাণ হচ্ছিল। সেই প্রকল্পের নামফলকে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন নাম ছিল। গত ১৭ নভেম্বর সন্ধায় কে বা কারা সেই নামফলকটি ভাঙচুর চালিয়েছেন। ওই দিন রাতেই মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন দাবী করেন, লিয়াকত হোসেন খোকা নিজে দাঁড়িয়ে থেকে নামফলকটি ভাঙচুর করিয়েছেন।

এ ব্যাপারে আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত বলেন, ২০০১ সাল থেকে জামাত-বিএনপির বিরুদ্ধে রাজপথে আন্দোলন করে আওয়ামীলীগকে ক্ষমতায় বসিয়েছি। আপনি খোকা প্রধানমন্ত্রীর দয়ায় এমপি হয়ে সেই বিএনপি-জামাতকে নিজের সাথে ভীড়িয়েছেন। আর অবস্থান নিয়েছেন আওয়ামীলীগ নেতা ও নৌকার বিরুদ্ধে। জেলা পরিষদের অর্থায়নে প্রায় ২০ টাকা ব্যয়ে স্কুলের এই উন্নয়ন কাজ হচ্ছে। সর্বজন শ্রদ্ধেয় নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের নামে করা ফলক ভেঙ্গে দিয়ে প্রতিটি আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের মনে আঘাত দিয়েছেন। আপনাকে আর কোন ছাড় দেয়া হবে না। আগামী পৌরসভা নির্বাচনে প্রধামন্ত্রী যাকে মনোনয়ন দিবে, আমরাও তাকেই পাশ করেয়ে আনবো।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন গোমড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরফি মাসুদ বাবু, সাবেক উাজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর ইসলাম রুমা, সোনারগাঁ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম নান্নু, উপজেলা যুবলীড়ের সাবেক সভাপতি গাজী মুজিবুর রহমান, জেলা পরিষদের সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাছুম, উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল হোসেন, পৌরসভা আওয়ামীলীগের নেতা মাইনুদ্দিন আহমেদসহ স্থানীয় যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

প্রসঙ্গত, ১৮ নভেম্বর এমপি খোকার শাস্তীর দাবী করে সন্ধ্যায় নগরীর বঙ্গবন্ধু সড়কে বিক্ষোভ মিছিল করে আনোয়ার হোসেন সমর্থকরা।”

মাহনগর আওয়ামীলীগের বিক্ষোভ:

নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেনের কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা না চাইলে, জেলার প্রতিটি ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মী নিয়ে পুরো নারায়ণগঞ্জ-কে অচল করার ঘোষনা দেয়া হয়েছে। একই সাথে আওয়ামীলীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট জাতীয় পার্টির এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার এমন আচরণের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে মহানগর আওয়ামীলীগ।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের কার্যালয় থেকে মহানগরের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জি এম আরাফাতের নেতৃত্বে তাৎক্ষনিক মিছিল বের করে। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন, কার্যকরি সদস্য সাখাওয়াত হোসেন সুমন, সাব্বির আহম্মেদ সাগর, নূরুজ্জামান, আরমান সহ নেতৃবৃন্দরা।

মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে জি এম আরাফাত বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আদর্শে রাজনীতিবিদ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন। তাকে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে মনোয়ন দিয়ে, আজ তিনি চেয়ারম্যান হয়ে পুরো জেলা জুড়ে উন্নয়নের কাজ করে যাচ্ছে। সেখানে তৃতীয় শ্রেণী এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা কিভাবে আনোয়ার হোসেন সাহেবের নামফলক নিজে দাড়িয়ে থেকে মিস্ত্রি দিয়ে ভাঙ্গিয়েছে। তার এমন দূসাহস কিভাবে পান? তিনি প্রকাশ্যে চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের কাছে ক্ষমা না চান, তাহলে জেলা জুড়ে প্রতিটি ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা মাঠে নামবে, নারায়ণগঞ্জ-কে অচল করে দেয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রী দৃষ্টি আকর্ষন করে আরাফাত বলেন, আওয়ামীলীগের সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় বজার রেখে আনোয়ার হোসেন জেলা পরিষদের অর্থায়নে স্কুল-কলেজ, মসজিদ-মন্দির, ঘাটলা, রাস্তা-ড্রেন, সড়কের লাইট, ভবন সহ বিভিণ্ন উন্নয়নের কাজ করে যাচ্ছেন। এমন উন্নয়নের কারণে লিয়াকত হোসেন খোকা মত তৃতীয় শ্রেণী এমপি তাকে (আনোয়ার হোসেনকে) ভয় পায়। লিয়াকত হোসেন খোকা ক্ষমতা লোভে বিভিন্ন কর্মকান্ড করে যাচ্ছে, সেগুলো ইতিমধ্যে সমলোচনা সৃষ্টি হয়েছে। প্রতিবার তিনি অপরাধ করে পাড় পেয়ে যাওয়া, তার অপরাধ দীর্ঘ হচ্ছে। এমপি খোকা কিভাবে আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাম ভেঙ্গে ফেলে, এর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানাই।

আর্কাইভ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও খবর