শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:০১ অপরাহ্ন

বিচারাধীন জমি দখলের চেষ্টায় নূর সালামের

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি:  / ৭ জন পড়েছেন
বুধবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২০

মুচলেকা দেয়ার পর বিচারাধীন জমিতে বালু ফেলে দখলের চেষ্টা চালাচ্ছেন আলোচিত সাত খুনের মামলার দন্ডপ্রাপ্ত আসামী নূর হোসেনের ভাই নূর সালামের বিরুদ্ধে। রাতের আঁধারে সন্ত্রাসীবাহিনী নিয়ে ট্টাকযোগে বালু ফেলে তিনি সিদ্ধিরগঞ্জের আটি মৌজার ঐ জমি দখলের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এতে এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে।

এলাকাবাসী ও অভিযোগ সূত্রমতে, সিদ্ধিরগঞ্জের আটি মৌজাস্থিত সিএস ১৫৭ নং ও এসএ ২৪৮ নং আর এস ৩০ খতিয়ানভূক্ত সিএস ও এসএ ৪৮২ নং ৪৮৩ নং আরএস ১৫৩ নং দাগে মোট ৪১ শতাংশ জমি ১৩-৯-১৯৮১ ইং সালে বায়না করে ১৫-২-১৯৮৪ ইং সালে জনৈকা আলফাতুন নেছার নিকট থেকে ক্রয় করেন সিদ্ধিরগঞ্জের মনির হোসেন বাবুল যিনি সম্প্রতি মৃত্যু বরণ করেছেন। জমি ক্রয় করার পর মনির হোসেন বাবুল ঐ জমিতে বাউন্ডারী দেয়াল নির্মাণ করে ভোগদখল করে আসছিলেন। এমনকি তিনি ঐ জমির মিউটেশন করে প্রতিবছর সরকারী খাজনা পরিশোধও করে আসছিলেন। পরবর্তীতে জনৈকা আলেমুন নেছা ও নুর সালাম হেবা ও আম-মোক্তার নামা দলিল মূলে এ জমি দাবি করে ভূমি আপিল বোর্ড, বিজ্ঞ অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) এর আদালত, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব), নারায়ণগঞ্জ সহকারী কমিশনার ভূমিতে মামলা চালানোর পর হেরে যান বলে উল্লেখ করেন মরহুম মনির হোসেন বাবুলের জামাতা ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা শফিকুল ইসলাম।

এদিকে নুর সালাম এ জমি দখল করার জন্য কয়েকবার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে মনির হোসেন বাবুলের কাছে ৩০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করলে মনির হোসেন বাবুল এ ব্যপারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র সচিব, পুলিশ হেডকোয়াটার্স, নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপারসহ বিভিন্ন দফতরে আবেদন করেন। বর্তমানে এ জমি নিয়ে নারায়ণগঞ্জ দেওয়ানী মামলা নং- ১১৪/২০১৫ বিচারাধীন রয়েছে। এ মামলা বিচারাধীন থাকাকালীন সময়ে নূর সালাম এ জমিতে যাবেন না বলে গত ১৯-৬-২০১৯ ইং তারিখে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ‘ক’ সার্কেলের সন্মুখে লিখিত অঙ্গীকার নামা দেয় যার স্বাক্ষী রয়েছেন তার ছেলে নাসিক ৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহ জালাল বাদল। ঐ অঙ্গীকা নামা সত্বেও গত সপ্তাহে নূর সালাম ও তার কিছু সন্ত্রাসী সহযোগী রাতের আঁধারে ঐ জমি দখল করার উদ্দেশ্যে ঐ জমিতে বালু ফেলা শুরু করে। কিন্তু এলাকাবাসী দেখে ফেলায় এলাকাবাসী এর প্রতিবাদ করলে নূর সালাম তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে পালিয়ে যায় বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। সন্ত্রাসীবাহিনী নিয়ে রাতের আঁধারে জমি দখলকরার ঘটনায় এলাকায় শুরু হয়েছে তোলপাড়। এলাকার শান্তি বিরাজ করার স্বার্থে এ ঘটনায় এলাকাবাসী প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এ ব্যাপারে জানতে অভিযুক্ত নূর সালামের বাসায় গিয়ে তাকে পাওয়া যায় নি।##

আর্কাইভ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও খবর