মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ১১:৪০ অপরাহ্ন

বিবাহিতদের দখলে সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রলীগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: / ৬ জন পড়েছেন
সোমবার, ১২ অক্টোবর, ২০২০

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রলীগ আঁকড়ে রেখেছে বিবাহিত ও বয়স্করা। আর এই বয়স্কদের ভীড়ে তরুনদের রাজনৈতিক বিকাশে বড় বাধা হয়ে দাড়িয়েছে।
এদিকে, সংগঠনটির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কমিটির মেয়াদ শেষ হলেও নতুন কমিটি হচ্ছেনা। যদিও কমিটির ভেতরে পদ পেতে নানা গ্রুপ তৈরী হচ্ছে সংগঠনের ভেতর। নতুন কমিটি গঠণ না হওয়ায় তৃনমূলে দেখা দিয়েছে হতাশা।
কারন কমিটির মধ্যে থাকা ২০/২৫ জন বিবাহিত রয়েছেন। বিবাহিত ও বয়স্করা শীর্ষ পদ আঁকড়ে ধরে থাকায় নতুনরা জায়গা পাচ্ছেন না। বিভিন্ন স্থানে দৌড়ঝাপ করেও কোনো কাজ হচ্ছেনা।
বতর্মান সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাসান রাশেদ ও সাধারন সম্পাদক রাসেল মাহামুদ। ২০১৭ সালের ২৫ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফায়াত আলম সানি ও সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান সুজন আনুষ্ঠানিকভাবে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট পুর্নাঙ্গ কমিটি ১ বছরের জন্য ঘোষনা করেন।
গঠনতন্ত্র অনুযায়ী এক কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে ২০১৮ সালের অক্টোবরে। কমিটির সভাপতি, সাধারন সম্পাদক সহ গুরুত্বপূর্ন পদের নেতারা অনেকেই বিবাহিত হলেও পদ আঁকড়ে রয়েছেন তাঁরা। মেয়াদ শেষ হনিজস্ব প্রতিবেদক: ও নতুন কমিটি গঠনের কোনো উদ্যোগ নিচ্ছেন না সংগঠনের নেতারা।
সংগঠনটির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক গত তিন বছর ধরে দায়িত্ব পালন করলেও উপজেলা মাত্র পাচঁটি ইউনিয়নের কমিটি গঠন করতে পেরেছেন। এখনও গঠন হয়নি কাচঁপুর, সনমান্দি, পিরোজপুর, নোয়াগাঁও ও সাদিপুর ইউনিয়নের কমিটি।
ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলার ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে অন্তত ২০/২৫ জন বিবাহিত রয়েছেন। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কমিটির মেয়াদ শেষ হলেও নতুন কমিটি হচ্ছেনা।
যদিও কমিটির ভেতরে পদ পেতে নানা গ্রুপ তৈরী হচ্ছে সংগঠনের ভেতর। নতুন কমিটি গঠণ না হওয়ায় তৃনমূলে দেখা দিয়েছে হতাশা। বিবাহিত ও বয়স্করা শীর্ষ পদ আঁকড়ে ধরে থাকায় নতুনরা জায়গা পাচ্ছেন না। বিভিন্ন স্থানে দৌড়ঝাপ করেও কোনো কাজ হচ্ছেনা।
তবে সংগঠনের নেতাদের দাবি, করোনা মহামারীর কারনে সকল ইউনিয়নের কমিটি গঠনে কিছুটা বিলম্বিত হয়েছে। সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কমিটি গঠন করা হবে।
বর্তমান কমিটিতে যারা বিবাহিত তারা হলেন, সভাপতি হাসান রাশেদ, সাধারণ সম্পাদক রাসেল মাহামুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক বিল্লাল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হাসান বাবু, যুগ্ম সম্পাদক শাওন, যুগ্ম সম্পাদক কাদির হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক আনিছুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম রেজা, সহ সভাপতি সাইফুল ইসলাম, সহ সভাপতি জহিরুল ইসলাম সজিব, সহ সভাপতি মিরাজুল ইসলাম সনেট, সাগর আহমেদ রনি, জামপুর ইউনিয়ন সভাপতি আলীম, শম্ভুপুরা ইউনিয়ন সভাপতি ইবনে সিনা প্রপেল, সাধারণ সম্পাদক হিমু, মোগরাপাড়া ইউনিয়ন সাংগঠনিক সম্পাদক আজিম হোসেন।
অপরদিকে, সাদিপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি বিবাহিত আমিন হোসেন, সাধারন সম্পাদক বিবাহিত আল আমিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাসেল, সহ সভাপতি জুয়েল সরকার, সহ আরো অনেকেই। যাদের কারনে উদীয়মান তরুন ছাত্রলীগের নেতৃত্ব বিকাশে বাধার সম্মুখীন হচ্ছে প্রতিনিয়তই।

আর্কাইভ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরও খবর